Page Nav

HIDE

Grid

GRID_STYLE

Classic Header

{fbt_classic_header}

সদ্য পাওয়া

latest

বাজেটে বাড়বে মোবাইল ফোনের দাম,কমবে বিদেশী সফটওয়্যারের দাম

আমদানি করা বিদেশি মোবাইল ফোনের সারচার্জ এক থেকে বাড়িয়ে দুই শতাংশ করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটে। ফলে আমদানি করা মোবাইল ফ...



আমদানি করা বিদেশি মোবাইল ফোনের সারচার্জ এক থেকে বাড়িয়ে দুই শতাংশ করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের বাজেটে। ফলে আমদানি করা মোবাইল ফোনের দাম বাড়বে। 

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপনের সময় এ কথা জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। 

এতদিন মোবাইল আমদানিতে শুল্ক বাবদ ১০ শতাংশ, মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) ১৬ দশমিক পাঁচ শতাংশ, অগ্রিম আয়কর (এআইটি) দুই শতাংশ ও সারচার্জ বাবদ আমদানিকারকদের এক শতাংশ দিতে হতো। এখন তা আরও এক শতাংশ বেড়ে দুই শতাংশ হওয়ায় মোট ট্যাক্স-ভ্যাটের পরিমাণ দাঁড়াল ৩০ দশমিক পাঁচ শতাংশে। ফলে ১০ হাজার টাকা দামের একটি মোবাইল ফোন আমদানিতে ট্যাক্স-ভ্যাট দিতে হবে তিন হাজার ৫০ টাকা।

অন্যদিকে সফটওয়্যার আমদানিতে শুল্ক ২৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে পাঁচ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে। আর ১৫ শতাংশ ভ্যাটও তুলে নেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে। ফলে আমদানি করা সফটওয়্যারের দাম কমবে।

ডাটবেজ, অপারেটিং সিস্টেম, ডেভেলমেন্টস টুল, প্রোডাক্টিভিটি, অটোমেটিক ডাটা প্রসেসিং মেশিনের জন্য কমিউনিকেশন কিংবা কোলাবরেশন সফটওয়্যারসহ বিভিন্ন সফটওয়্যারে এই ছাড় দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

এদিকে মোবাইল ফোনের কাঁচামাল আমদানিতে শুল্ক ২৪ শতাংশ পর্যন্ত কমানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। ফলে কমতে পারে দেশে উৎপাদিত মোবাইল ফোনের দাম।

আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদের পঞ্চম বাজেট এটি। বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটির বাজেট উপস্থাপন শুরু করেন অর্থমন্ত্রী। এর মধ্যে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্য দুই লাখ ৯৬ হাজার ২০১ কোটি টাকা।

বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে জাতীয় সংসদ ভবনে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য এই বাজেট অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এরপর মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পাওয়া প্রস্তাবিত বাজেটে সম্মতিসূচক স্বাক্ষর করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

No comments